ENGLISH ঢাকাঃ সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৫:৫০

প্রকাশিত : শনিবার, ২৫ আগস্ট ২০১৮ ০৩:১১:৩৬ পূর্বাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

ফেনীতে বাসের চাপায় ৬ জনের প্রাণহানী

দ্যা ডেইলি ডন

ফেনীর ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের লেমুয়ায় একটি বাসের চাপায় চালকসহ সিএনজিচালিত অটোরিকশার ছয় যাত্রী নিহত হয়েছে।আহত হয়েছেন আরও দুজন। শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে শ্যামলী পরিবহনের বাসের চাপায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।  

নিহতরা হলেন- সিএনজি অটোরিক্সা চালক রুহুল আমিন (৫২), যাত্রী শাহাদাত হোসেন, বেলাল হোসেন, নাসির উদ্দিন, সালমা আক্তার, নাসিমা আক্তার। তারা সবাই সোনাগাজী উপজেলার নবাবপুর ও রঘুনাথপুর গ্রামের নতুন বাড়ির বাসিন্দা। তারা ওই সিএনজিতে চড়ে ফেনী থেকে বাড়ি ফিরছিলেন।তারা সবাই সিএনজি অটোরিকশার যাত্রী ছিলেন। 
রুহুল আমিন ফেনী পৌরসভার ১৫ ওয়ার্ডের বাসিন্দা। 

স্থানীয়রা জানান, শ্যামলী পরিবহনের একটি চট্টগ্রামগামী যাত্রীবাহী বাস ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফেনী সদর উপজেলার লেমুয়া বাজার সংলগ্ন ভাঙ্গার তাকিয়া নামক স্থানে একটি সিএনজিকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই ২ নারী, ৪ পুরুষসহ ৬ জন নিহত হন। ঘটনাস্থল থেকে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা নিহতদের লাশ উদ্ধার করে ফেনী সদর হাসপাতালে মর্গে পাঠিয়েছে। 

হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (ওসি) আবদুল আউয়াল চৌধুরী বলেন, শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে একটি যাত্রীবাহী সিএনজিচালিত অটোরিকশা  ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক পার হচ্ছিল। এ সময় শ্যামলী পরিবহনের একটি দ্রুতগামী বাস অটোরিকশাটিকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তিনজন নিহত হন। এরপর ফেনী সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান আরো তিনজন। 

নিহতদের মধ্যে অটোরিকশার চালক রুহুল আমিন ফেনী পৌরসভার ১৫ ওয়ার্ডের বাসিন্দা। শ্যামলী পরিবহনের বাসটি পুলিশ জব্দ করলেও চালক পালিয়ে গেছে বলে পুলিশ জানায়। ময়নাতদন্তের জন্য ছয়জনের লাশ ফেনী জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।  

ফেনীর পুলিশ সুপার এস.এম জাহাঙ্গীর আলম সরকার দুর্ঘটনার খবর নিশ্চিত করে বলেন, ‘লেমুয়া এলাকায় যাত্রী উঠিয়ে সিএনজিটি পেছন দিকে ঘুরছিল। এসময় পেছন থেকে আসা শ্যামলী পরিবহণের বাসটি সিএনজিটিকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তিন জন নিহত হন। আহত দুজনকে ফেনী সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।’

আরো খবর

    ট্যাগ নিউজ

    সর্বশেষ খবর