ENGLISH ঢাকাঃ রোববার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৬:৩৫

প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ১৬ আগস্ট ২০১৮ ০৫:০০:২১ অপরাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

মোবাইল ফোনে সর্বনিম্ন কলচার্জ প্রতি মিনিট ৪৮ থেকে ৬২ পয়সা

দ্যা ডেইলি ডন

মোবাইল ফোন অপারেটর ও অফারভেদে এখন সর্বনিম্ন কলচার্জ প্রতি মিনিট ৪৮ পয়সা থেকে ৬২ পয়সা। সর্বোচ্চ কলচার্জ হচ্ছে এক টাকা ২০ পয়সা থেকে এক টাকা ৩০ পয়সা।  অননেট ও অফনেটের বিভাজন উঠে যাওয়ায় অফনেট কলচার্জ যতটা কমবে বলে আশা করা হয়েছিল। কিন্তু কিছু ক্ষেত্রে আগের অফনেটের মতো উচ্চহার কলচার্জ বহাল আছে। আবার সর্বনিম্ন কলচার্জ আগে যেখানে অপারেটরভেদে প্রতি মিনিট ৩০ পয়সা থেকে ৩৯ পয়সা ছিল তা বেড়ে ৫৬ পয়সা থেকে ৬১ পয়সা হয়েছে। বিভিন্ন মোবাই ফোন অপারেটরদের নতুন অফারগুলো বিশ্লেষণ করে এ সব তথ্য পাওয়া গেছে। অপারেটরদের পক্ষ থেকেও স্বীকার করা হচ্ছে আগে প্রতি মাসে এভারেজ রেভিনিউ পার ইউজার ছিল গড়ে ১২২ টাকা। নতুন কলচার্জে তা বেড়ে ১৩০ থেকে ১৩২ টাকা হতে পারে। এর সঙ্গে সমন্বয় করে সরকারের আয়ও বাড়বে। 


গ্রামীণফোনের সংশোধিত অফার হচ্ছে, যেকোনো স্থানীয় অপারেটরে ১৬ ঘণ্টার জন্য ১৪ টাকায় ২৫ মিনিট কথা বলার সুযোগ। এতে প্রতি মিনিট কথা বলায় ব্যয় হবে ৫৬ পয়সা। আরেকটি অফার হচ্ছে, কোনো স্থানীয় অপারেটরে ১৫ দিনের জন্য ২৩৭ টাকায় ৪৩০ মিনিট কথা বলার সুযোগ। এতে প্রতি মিনিট কথা বলায় ব্যয় হবে ৫৫.১ পয়সা। আগে এ ধরনের অফারে ২৫ পয়সা মিনিটে কথা বলার সুযোগ ছিল। এ ছাড়া এই অপারেটরের গ্রাহকদের কাছে এই এসএমএস যাচ্ছে যে সুপার এফএনএফ ও এফএনএফে কল করতে এখন ভ্যাট, এসডি (সাপ্লিমেন্টারি ডিউটি) ও এসসি (সারচার্জ) বাদে প্রতি মিনিট ৬৬ পয়সা করে দিতে হবে। অর্থাৎ এসব কলের সঙ্গে আরো প্রায় ২১ শতাংশ ভ্যাট, এসডি ও এসসি যোগ হবে। অন্য অপারেটরদেরও একই অবস্থা। 


বাংলাদেশ মোবাইল ফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, বিটিআরসি জনগুরুত্বপূর্ণ এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে গণশুনানির আয়োজন করতে পারত। তা না করে হঠাৎ করে এটি করা ঠিক হয়নি। বিশ্বে টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থার ব্যাপক উন্নয়নের সঙ্গে এ সেবার খরচও কমছে। এই বাস্তবতায় গ্রাহকদের ব্যয় বাড়ানোর বিষয়টি সমর্থনযোগ্য নয়।

এই বাস্তবতা মানতে নারাজ বিটিআরসি। বুধবার বিটিআরসির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জহুরুল হক বলেন, আগে অননেটের ক্ষেত্রে সর্বনিম্ন কলচার্জ ছিল প্রতি মিনিট ২৫ পয়সা। এখন তা ৪৫ পয়সা করা হয়েছে। অফনেটের ক্ষেত্রে সর্বনিম্ন কলচার্জ ছিল ৬০ পয়সা। এখন তা ৪৫ পয়সা। এ অবস্থায় অননেটের কলচার্জ কিছুটা বাড়লেও অফনেটে কমে আসছে। বিটিআরসি এ বিষয়ে দীর্ঘদিন স্টাডি করেছে। এতে গ্রাহকরা উপকৃত হবে। কিন্তু গ্রাহকদের অভিযোগ, অফনেটে এখনো উচ্চহারে চার্জ নেওয়া হচ্ছে। এ বিষয়ে বিটিআরসির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বলেন, এ ধরনের ঘটনা ঘটে থাকলে তার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অপারেটরদের মধ্যে প্রতিযোগিতা থাকলে এমনটা হওয়ার কথা নয়।

নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি গত ১৪ আগস্ট রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে অফনেট ও অননেট বিভাজন তুলে দিয়ে সর্বনিম্ন কলচার্জ নির্ধারণ করে দেয় প্রতি মিনিট ৪৫ পয়সা। আর সর্বোচ্চ কলচার্জ নির্ধারণ করে দেয় প্রতি মিনিট দুই টাকা।

আরো খবর

    ট্যাগ নিউজ

    সর্বশেষ খবর