ENGLISH ঢাকাঃ সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৬:১২

প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ১৩ মার্চ ২০১৮ ০২:২০:১১ পূর্বাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

নেপালে ইউএস-বাংলার বিমান দুর্ঘটনায় অন্তত ৫০ জন নিহত

দ্যা ডেইলি ডন

নেপালের ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিধ্বস্ত হওয়া বিমানটিতে থাকা ৬৭ যাত্রীর মধ্যে অন্তত ৫০ জন নিহত হয়েছে। নেপালের সেনাবাহিনী  এ তথ্য  জানিয়েছে । 

৭৮ আসনের বিমানটিতে ৬৭ জন যাত্রী এবং ৪ জন ক্রু মেম্বার ছিলেন বলে ইউএস-বাংলা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। ত্রিভুবন বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এদের মধ্যে ৩৭ জন পুরুষ, ২৭ জন নারীর সঙ্গে ছিল দুই শিশু। বিমানটিতে ৩৭ জন বাংলাদেশি। নেপালের ৩৩ জন, মালদ্বীপের ১ জন এবং চীনের ১ জন ছিলেন বাকিদের মধ্যে।বিমান দুর্ঘটনায় নেপালী যাত্রীর মধ্যে ১৩ জনই সিলেটের জালালাবাদ রাগীব-রাবেয়া মেডিকেল কলেজে অধ্যয়নরত ছিলেন। কলেজ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে তারা সবাই মারা গেছেন। সবাই ছিলেন ফাইনাল ইয়ারের এমবিবিএস ছাত্র-ছাত্রী ছিলেন।

মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক আবেদ হোসেন জানান, ইতোমধ্যেই তাদের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। 

ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের মুখপাত্র প্রেম নাথ ঠাকুরের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, ৭৮ আসনের বোম্বার্ডিয়ার ড্যাশ ৮ কিউ-৪০০ মডেলের উড়োজাহাজটি স্থানীয় সময় ২:২০ মিনিটে বিধ্বস্ত হয়। এসটু-এইউজি নামে নিবন্ধিত ফ্লাইটটি ঢাকা ছেড়েছিলো সোমবার দুপুর ১২:৫২ মিনিটে। দুর্ঘটনার পরপরই বিমানবন্দরটিতে সবধরণের উড়োজাহাজের ওঠা-নামা বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। বিমানবন্দরে অবতরণের সময় রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ার পর বিমানটিতে আগুন লেগে যায়। এর পর সেটি বিমানবন্দরের কাছে একটি ফুটবল মাঠে বিধ্বস্ত হয়। ঢাকা থেকে ছেড়ে যাওয়া বিমানটি স্থানীয় সময় ২টা ২০ মিনিটে নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুতে অবতরণ করে। 

নেপালের সিভিল এভিয়েশন অথোরিটি জানিয়েছে, দিক ভুল করে রানওয়েতে ল্যান্ড করার সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুর্ঘটনায় পড়ে বিমানটি। নেপালের সিভিল এভিয়েশন অথোরিটির মহাপরিচালক সঞ্জিব গৌতম এ ব্যাপারে কাঠমাণ্ডু পোস্টকে জানান, ‘বিমানটিকে নির্দেশনা দেয় ছিলো কোটেশ্বরের উপর দিয়ে রানওয়ের দক্ষিণ দিক থেকে নামার জন্য। কিন্তু এটি উত্তর দিক থেকে নামার সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আছড়ে পড়ে। আমরা ধারণা করছি কোনো একটি যান্ত্রিক গোলযোগের জন্য এমনটা হয়েছে। এই অদ্ভুত অবতরণের রহস্য উদঘাটনে আমরা এখনও কাজ করে যাচ্ছি।

আরো খবর

    ট্যাগ নিউজ

    সর্বশেষ খবর